আলোচিত সংবাদ

মুরাদের জন্য অঝোরে কেঁদে ভাইরাল যুবলীগ নেতা

প্রতিমন্ত্রীর পদ থেকে পদত্যাগ করা ডা. মুরাদ হাসানের জন্য অঝোরে কেঁদেছেন এমডি রানা সরকার নামে স্থানীয় এক যুবলীগ নেতা। তিনি ১৫ মিনিটের ফেসবুক লাইভ করে রীতিমতো ভাইরাল হয়েছেন। তবে, এই যুবলীগ নেতার কান্নাকাটি দেখে শান্তনার পরিবর্তে গালিগালাজ করছেন নেটিজেনরা।

গতকাল মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে মাত্র ২২ ঘন্টার ব্যবধানে ওই ভিডিওতে লাইক পড়েছে ১৫ হাজার, কমেন্ট পড়েছে ৬ হাজার ৪০০, শেয়ার করেছেন ৭৪১ জন ও ভিডিওটি দেখেছেন প্রায় পৌনে দুই লাখ মানুষ।

জানা যায়, এমডি রানা সরকার জামালপুরের সরিষাবাড়ি উপজেলা যুবলীগের সদস্য। তিনি নিজেকে তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসানের সক্রিয় কর্মী হিসেবেই পরিচয় তুলে ধরেছেন।

ভিডিওটিতে তিনি বলেন, প্রতিমন্ত্রী হওয়ার পর প্রতিমন্ত্রীর আশীর্বাদপুষ্ট হয়েছে আওয়ামী লীগের বহু নেতাকর্মী। দুঃসময়ের নেতাকর্মীরা মুরাদের কাছ থেকে কোনো সুবিধা নিতে না পারলেও অসংখ্য নতুন কর্মী বাগিয়ে নিয়েছেন বহু সুযোগ সুবিধা।

তিনি আরও বলেন, তথ্য প্রতিমন্ত্রী বিভিন্ন সময় ভুল বক্তব্য দিতেন। পাশে থাকা সুবিধাভোগী তৈলবাজ নেতাকর্মীরা ভুল ধরিয়ে দেওয়ার পরিবর্তে আরও উৎসাহ দিয়েছে। ফলে ভুলভাল মন্তব্যে বার বার সমালোচিত হয়েছেন প্রতিমন্ত্রী।

এ সময় যুবলীগের এই নেতা কান্নাজড়িত কন্ঠে বলেন, আমার নেতা এখন সবই হারিয়েছে। তার এমন দুঃসময়ে বর্তমানে কোনো নেতাকর্মী তার পাশে নেই৷ নেতার জন্য দোয়া চেয়ে আবারও কান্নায় ভেঙে পড়েন তিনি।

কিন্তু যুবলীগ নেতার আবেগ জড়ানো এই ভিডিও দেখে তাকে তৈলবাজ হিসেবেই মন্তব্য করে গালিগালাজ করছেন বেশীরভাগ নেটিজেনরা। অনেকে তাকে নিয়ে হাসি তামাশায় মেতে উঠেছেন।এদিকে আরমান আলী নামে একজন কমেন্ট করে লিখেছেন, এমন তৈলবাজকে নোবেল পুরষ্কার দেওয়া হোক। হায়রে অভিনয়! সাদ্দাম হোসেন নামে আরেকজন লিখেছেন, মুরাদকে আজীবনের জন্য আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কার চাই।

Related Articles

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!