আলোচিত সংবাদ

আবরার হত্যায় ২০ জনের মৃত্যুদণ্ড যা বললেন তসলিমা

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদ হ`ত্যা মামলায় ২০ জনের ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন আদালত। এছাড়া এ মামলার অপর পাঁচ আসামির যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

আজ বুধবার ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-১-এর বিচারক আবু জাফর মো. কামরুজ্জামান এ রায় ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণার সময় ২২ আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন। বাকি তিন আসামি এখনও পলাতক রয়েছে।

এদিকে, এই রায়ে নিজের প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন লেখিকা তসলিমা নাসরিন। তিনি একজনের হ`ত্যার অপরাধে ২০ জনকে ফাঁ`সির পক্ষে না। এটাকে রাষ্ট্রী হ`ত্যাকারীদের চেয়ে ২০ গুন বেশি অন্যায় করেছে বলে দাবি তার।তসলিমা নাসরিন তার ফেসবুক ভেরিফাইড পেজে আবরার হ`ত্যাকাণ্ডের রায় নিয়ে এক স্ট্যাটাসে এসব কথা বলেন।

ফেসবুক স্ট্যাটাসটি হুবাহু তুলে ধরা হলো:-বাংলাদেশের প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের এক জামায়াতপন্থী ছাত্র আবরারকে কয়েকজন আওয়ামী লীগ পন্থী ছাত্র পি`টিয়েছিল। পে`টাতে পেটাতে এক সময় ওরা দেখলো আবরার ছেলেটি মরে গেছে। আবরার হ`ত্যার বিচারের রায় বেরোলো আজ। ২০ জনের মৃ`ত্যুদণ্ড আর ৫ জনের যাবজ্জীবন!

আওয়ামীলীগপন্থী ছাত্ররা যে অন্যায় করেছিল, আওয়ামীলীগপন্থী রাষ্ট্র সেই অন্যায়ের চেয়ে ২০ গুণ বেশি অন্যায় করছে। ছাত্ররা ১ জনকে হ`ত্যা করেছিল, রাষ্ট্র তার প্রতিশোধ নিতে গিয়ে ২০ জনকে হ`ত্যা করবে। ছাত্ররা কাউকে যাবজ্জীবন দেয়নি, রাষ্ট্র ৫ জনকে দেবে। ছাত্রদের চেয়ে রাষ্ট্র নিঃসন্দেহে বেশি নৃশংস, বেশি ভয়ংকর।

মানুষ জেনে বুঝে বা ভুল বুঝে, কুশিক্ষায় আক্রান্ত হয়ে, ক্রো`ধান্বিত হয়ে, বেপরোয়া হয়ে, মাথা গরম করে কখনও কখনও খু`ন করে। কিন্তু রাষ্ট্র খু`ন করলে ঠান্ডা মাথায় করে। রাষ্ট্র যদি খু`ন করে — তাহলে সর্বনাশ, কারণ মানুষের খু`ন অবৈধ, রাষ্ট্রের খু`ন বৈধ। এই খু`নকে সমালোচনা করার বিধান নেই। আসলে রাষ্ট্রের দায়িত্ব জনগণকে খু`ন না করার, অপরাধ না করার শিক্ষা দেওয়া, জনগণকে শা`ন্তির পথ দেখানো, সৌহার্দের বন্ধন দৃঢ় করতে শেখানো , উদারতা শেখানো। সেখানে রাষ্ট্রই যদি খু`ন করে, জনগণ তো খু`ন করাই শিখবে।

আওয়ামী লীগ সরকার হয়তো ভেবেছে তাদের শাসন ব্যবস্থায় নিজের দলের লোককে এমন ভ`য়াবহ শাস্তি দিলে লোকে বাহবা দেবে, আওয়ামী লীগকে নিরপেক্ষ দল বলবে। না, তা বলার কোনও কারণ নেই। এই দল বহুবার প্রমাণ করেছে, যে, এই দল আর যা-ই হোক, নিরপেক্ষ নয়। নিরপেক্ষতা দেখাতে গিয়ে প্রাণনাশী হওয়া কিন্তু অক্ষমাযোগ্য অপরাধ।

Related Articles

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!