আলোচিত সংবাদ

খালেদা জিয়ার পাসপোর্ট নবায়নের বিষয়ে যা বললেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার পাসপোর্ট নবায়ন সংক্রান্ত কোনো আবেদন পাননি বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে সচিবালয়ে গণমাধ্যমকে তিনি এ কথা জানিয়েছেন। তিনি বলেন, খালেদা জিয়ার পাসপোর্ট নবায়নের আবেদন আমার কাছে করেননি।

উনি যদি করে থাকেন, অন্য কোথাও করেছেন। আমার কাছে এ ধরনের আবেদন আসেনি। উনার কাছে উনার পাসপোর্ট আছে কি না আমি জানি না। আমাদের মন্ত্রণালয়ে পাসপোর্ট নবায়নের জন্য তার কোনো আবেদন আসেনি। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আইনমন্ত্রী সংসদে আইনের ব্যাখ্যাটাও দিয়ে দিয়েছেন। ৪০১ ধারায় যে ব্যবস্থা করা হয়েছে, আবারও যদি ৪০১ প্রয়োগ করতে হয় তাহলে তাকে আবার এটা স্থগিত করে জেলখানায় যেতে হবে এবং সেখান থেকে আবেদন করতে হবে।

প্রধানমন্ত্রীর কাছে যে আবেদনটি এসেছে, তার ভাই আমাদের কাছে হস্তান্তর করেছে। সেটা আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়ে দিয়েছিলাম। আইনমন্ত্রী পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে পরবর্তীতে যা করণীয় তিনিই করবেন। সরকারের প্রতিহিংসার কারণে চিকিৎসাবঞ্চিত হচ্ছেন খালেদা জিয়া—বিএনপি নেতাদের এমন অভিযোগ প্রসঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, প্রতিহিংসার কথাটা কীভাবে আসলো সেটা আমার বোধগম্য না। প্রধানমন্ত্রী মাদার অব হিউম্যানিটি। শুধু আমাদের দেশের লোক বলে না, সারা পৃথিবীর মানুষ আজ তাকে মূল্যায়ন করে।

বিএনপি চেয়ারপারসন যখন জেলখানায় অন্তরীণ ছিলেন, ওই সময় তার চিকিৎসার জন্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে সব ধরনের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের মাধ্যমে তাকে সেবা দিয়েছেন। তারপরও তিনি মনে করেছেন, তার আরও ভালো চিকিৎসা যদি হয় তাহলে তিনি বাসা থেকে করুক। তার দণ্ড স্থগিত রেখে তিনি বাসায় চিকিৎসা করার জন্য ব্যবস্থা করে দিয়েছেন। কাজেই এখানে প্রতিহিংসার প্রশ্নই আসে না।

সরকারের পক্ষ থেকে আরও মানবিকতা দেখানোর সুযোগ আছে কি না সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ককোর যখন ইন্তেকাল হলো। মরদেহ দেশে এলো। প্রধানমন্ত্রীর অনেক যন্ত্রণা ছিল, তারপরও তিনি গিয়েছেন। দেখার জন্য, সমবেদনা জানানোর জন্য, গেইট পর্যন্ত খোলা হয়নি। মানবিকতার কথা যদি বলেন, আমি বলবো প্রধানমন্ত্রী মাদার অব হিউম্যানিটি। দুই দফা দাবিতে বিএনপির আন্দোলন প্রসঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তারা একটি রাজনৈতিক দল।

তারা আন্দোলন করতে পারে, প্রতিবাদ করতে পারে, দোয়া মাহফিল করতে পারে। এগুলো রাজনৈতিক কর্মসূচি। সহিংস কোনো ঘটনা ঘটায় আমাদের আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর যে দায়িত্ব তা তারা পালন করবেন। সরকার খালেদা জিয়াকে বিদেশে পাঠানোর বিষয়ে ভাবছে কি না জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, কী করতে হবে সেটা মেডিকেল বোর্ড জানে। আদালত যদি আমাদের ও রকম নির্দেশনা দেয় তাহলে আমরা করতে পারবো। আদালতের বাইরে যাওয়ার সুযোগ আমাদের নেই।

Related Articles

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!