আলোচিত সংবাদ

‘চলে যাচ্ছি, আর আসবো না’

এক মাসেও খুঁজে পাওয়া যায়নি তাদের। সঙ্গে মোবাইল ফোন না থাকায় অবস্থানও শনাক্ত করা যাচ্ছে না।তবে কি লিখে যাওয়া চিঠির ভাষাই ‘চলে যাচ্ছি আর আসবো না’ সত্যি হতে চলেছে-এমন আশংকায় প্রতিটা মুহূর্ত কাটছে দুই পরিবারের।

তামান্না আকতার (১৭) ও অর্পা মল্লিক (১৬)। দুই বান্ধবী গত ২৩ নভেম্বর এসএসসি পরীক্ষা দিয়ে রহস্যজনকভাবে উধাও হয়ে যায়।সীতাকুণ্ড উপজেলার দক্ষিণ মছজিদ্দা মাস্টার পাড়ার ফুরক মিস্ত্রি বাড়ির মৃত মাসুদ মিয়ার মেয়ে তামান্না।

অর্পা ছোট কুমিরা ৩ নম্বর ওয়ার্ড মছজিদ্দা এলাকার স্বপন মল্লিকের মেয়ে।দুই বান্ধবী নিখোঁজ হওয়ার পর তাদের পরিবারের পক্ষ থেকে সীতাকুণ্ড থানায় সাধারণ ডায়েরি করা হয়। খোঁজাখুঁজি করা হয় বিভিন্ন স্থানে। থানা পুলিশও দিতে পারেনি কোনও সুখবর।

অর্পা মল্লিকের মা অঞ্জনা মল্লিক বলেন, পরীক্ষার শেষদিন কেন্দ্রে যাওয়ার আগে অর্পা একটি চিঠি লিখে বালিশের নিচে রেখে যায়। চিঠিতে সে লিখেছে, ‘আমি চলে যাচ্ছি, আর আসবো না। আমি একজনকে ভালোবাসি, তাকে নিয়েই চলে যাচ্ছি। আমাকে মাফ করে দিও’। পরে যখন চিঠিটা পাই, তখন থেকে মেয়ের খোঁজ করতে থাকি। কিন্তু একমাসেও মেয়েকে পাইনি। সে কোথায় আছে, কেমন আছে-কিছুই জানি না। তার কাছে মোবাইল ফোনও নেই।

তামান্না আকতারের মা ছকিনা বেগম বলেন, কোনও চিঠি লিখে যায়নি তামান্না। ঘরে রেখে গেছে মোবাইল ফোন। থানায় ডায়েরি করা হয়েছে। এখনও মেয়েকে খুঁজে পাইনি।সীতাকুণ্ড থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবুল কালাম আজাদ বলেন, দুই ছাত্রী ঘনিষ্ঠ বান্ধবী। তাদের নিখোঁজ থাকা রহস্যজনক। এসএসসি’র শেষদিন পরীক্ষা দিয়ে তারা একসঙ্গেই নিখোঁজ হয়ে যায় বলে জানা গেছে। তাদের অবস্থান শনাক্ত করার চেষ্টা চলছে।

Related Articles

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!