বিনোদন

এবার জন্মদিনে কোটি কোটি টাকার যেসব উপহার পেলেন সালমান খান

তার সিনেমায় আসা স্বাভাবিক, অনুমেয় ঘটনা ছিল। কেননা বাবা ছিলেন স্বনামধন্য চিত্রনাট্যকার। কিন্তু বলিউডে এতোটা আধিপত্য বিস্তার করবেন, এতোটা জনপ্রিয় হবেন; সেটা হয়ত কেউই কল্পনা করতে পারেনি। মুম্বাই সিনে ইন্ডাস্ট্রি তার নামে কাঁপে, তার সিনেমা মুক্তি পেলে বক্স অফিসে ওঠে ঘুর্ণিঝড়। গত তিন দশকে বলিউডের সবচেয়ে সফল তারকাদের একজন তিনি।

সেই মহাতারকার নাম সালমান খান। গত ২৭ ডিসেম্বর ছিল তার জন্মদিন। ১৯৬৫ সালের এই দিনে ভারতের মধ্যপ্রদেশ রাজ্যের ইন্দোরে জন্মগ্রহণ করেন তিনি। তার বাবা খ্যাতিমান চিত্রনাট্যকার সেলিম খান। জন্মের পর বাবা নাম রাখেন আব্দুল রশিদ সেলিম সালমান খান। তবে ভারত ছাড়িয়ে বিশ্বব্যাপী তিনি ‘সালমান খান’ নামেই পরিচিত।

বিশেষ দিনটি উপলক্ষে আত্মীয় ও বন্ধুদের কাছ থেকে ঢালাও দামী উপহার পেয়েছেন ভাইজান। সালমানকে সবচেয়ে দামী উপহার দিয়েছেন বাবা সেলিম খান। তিনি ছেলেকে জুহুতে একটা অ্যাপার্টমেন্ট উপহার দিয়েছেন। যেটির দাম ১২-১৩ কোটি টাকা

ভাই আরবাজ খান দিয়েছেন একটি অডি গাড়ি, যেটির দাম প্রায় তিন কোটি টাকা। আরেক ভাই সোহেল খান দিয়েছেন ২৫ লাখের একটি বিএমডাব্লিউ গাড়ি। বোন অর্পিতা দিয়েছেন রোলেক্স ঘড়ি, যার দাম ১৫ থেকে ১৭ লাখের মধ্যে। ভগ্নিপতি অন্তিমের উপহার একটা সোনার চেইন, যার দাম ৭৫ হাজার।

উপহার দেওয়ার এ প্রতিযোগীতায় পিছিয়ে ছিলেন না সালমানের সহ অভিনেতা-অভিনেত্রীরা। ভাইজানের সাবেক প্রেমিকা ও ভিকিপত্নী ক্যাটরিনা কাইফ দুই থেকে তিন লাখ টাকা দামের সোনার ব্রেসলেট উপহার দিয়েছেন। আরেক অভিনেত্রী শিল্পা শেট্টির উপহার হলো সোনার উপর হিরা বসানো ব্রেসলেট, যার দাম ১৫ থেকে ১৭ লাখ টাকা। অভিনেতা সঞ্জয় দত্তও একটা হিরার ব্রেসলেট দিয়েছেন, যার দাম সাত থেকে আট লাখ টাকা। অনিল কাপুর চামড়ার জ্যাকেট দিয়েছেন, যার দাম প্রায় ২৮ লাখ টাকা। অভিনেত্রী জ্যাকলিন ফার্নান্দেজ ১০-১২ লাখ টাকার ঘড়ি দিয়েছেন সালমানকে।

তবে জন্মদিনের আগের দিন সালমান খানকে সাপে কামড়েছিলো। গেল শনিবার (২৫ ডিসেম্বর) মধ্যরাতে পানভেলের ফার্মহাউসে এই দুর্ঘটনা ঘটে। সাপের কামড়ের পর সঙ্গে সঙ্গেই সালমানকে মুম্বাইয়ের এমজিএম (মহাত্মা গান্ধী মিশন) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। সাপটি বিষহীন থাকায় হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসার পর ছেড়ে দেওয়া হয়েছে ভাইজানকে। তিনি আশঙ্কামুক্ত ও সুস্থ আছেন।

জানা যায়, পানভেলে নিজের ফার্মহাউসে বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা দিচ্ছিলেন সালমান খান। মধ্যরাতে সেই আড্ডার মাঝেই সাপে ছোবল দেয় তাকে। হঠাৎ হাতে ব্যথা অনুভব করেন ভাইজান। তার বন্ধুরা দেখেন, সালমানের পাশ দিয়েই একটি সাপ চলে যাচ্ছে।এই বাড়িতে যে সাপ আছে, তা কেয়ারটেকারদের আগেই জানিয়েছিলেন ভাইজান। ফার্মহাউসের চারপাশে প্রচুর জঙ্গল এবং আগাছা রয়েছে। এসব জায়গায় সাপ থাকা স্বাভাবিক।
প্রসঙ্গত, বরাবরই পরিবার এবং অনুরাগীদের সঙ্গে নিজের বিশেষ দিন পালন করেন সালমান। ২০২০ সালের জন্মদিনেও পানভেলের খামারবাড়িতে কাছের মানুষদের সঙ্গে কাটিয়েছেন তিনি। প্রথম লকডাউনের সময়ও এখানেই আশ্রয় নিয়েছিলেন ভাইজান।

বর্তমানে ‘টাইগার ৩’ সিনেমার কাজ নিয়ে ব্যস্ত রয়েছেন সালমান। সিনেমাটিতে তার বিপরীতে রয়েছেন ক্যাটরিনা কাইফ। এ অভিনেত্রীর বিয়ের আগে তুরস্ক ও রাশিয়ায় শুটিংয়ে অংশ নিয়েছেন তারা। শিগগিরই আবারও সিনেমাটির শুটিংয়ে যোগ দেবেন সালমান-ক্যাটরিনা। সূত্র: ডয়চে ভেলে।।

Related Articles

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!