বিনোদন

নুসরাতকে বাড়ির ঝি বানিয়ে ফেলেছেন যশ!

টলিউড অভিনেত্রী ও তৃণমূল সাংসদ নুসরাত জাহান একটি এফএম রেডিওতে ‘ইশক উইথ নুসরাত ভালোবাসা বোল্ড’ শিরোনামের অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করছেন। গত কয়েকটি পর্বে মদন মিত্র, অভিনেত্রী ঋতাভরী চক্রবর্তী অতিথি হিসেবে হাজির হয়ে গোপন কথা শেয়ার করেন। এবার তার অতিথি হিসেবে হাজির হয়েছিলেন তার ‘স্বামী’ যশ দাশগুপ্ত।

আলাপচারিতার শুরুর দিকে ভালোবাসার প্রসঙ্গ উঠে। যশ তার ভাবনার কথা জানিয়ে বলেন—‘আমার কাছে ভালোবাসা মানে হলো—কেমিক্যাল রিঅ্যাকশন, যা মস্তিষ্কে ঘটে। এর মাধ্যমে মানুষকে দিয়ে বাজে চিন্তা করায়। প্রেমে পড়ার আগে যে মানুষটি কিছু কাজ কোনোভাবেই করতে চাইতো না সেসব অনায়াসে করে বসে।’

যশ দাশগুপ্ত অনেকবার বলেছেন ব্যক্তিগত বিষয় সবার কাছে শেয়ার করতে চান না তিনি। এই শোয়ে এসেও তার ব্যতিক্রম বলেননি। তার ভাষায়—‘আমার ব্যক্তিগত জীবনকে আড়ালে রাখতেই পছন্দ করি। এই চিন্তাটি পুরোনো বলা যেতে পারে। ছোটবেলায় মা বলতেন, ভালো জিনিস মানুষকে দেখাতে যাবে না, নজর লাগবে। এখনো আমি এতে বিশ্বাস করি। ব্যক্তিগত জীবনকে ব্যক্তিগত রাখতেই পছন্দ করি।’

ব্যক্তিগত জীবনে সম্পর্কের টানাপড়েন, ভাঙাগড়া রয়েছে। এসব বিষয় কীভাবে দেখো? এমন প্রশ্নের জবাবে যশ দাশগুপ্ত বলেন, ‘দুজন মানুষের মধ্যে যখন তৃতীয় ব্যক্তি প্রবেশ করে (বাবা-মা, ভাই-বোন, বন্ধু বা যে কেউ), তখন মূলত এই ইস্যুটা শুরু হয়। এজন্য সম্পর্কের ক্ষেত্রে তৃতীয়পক্ষকে এড়িয়ে যেতে হবে। কারণ আমার ছেলের সঙ্গে যে সম্পর্ক সেখানে তার মাকে ঢুকতে দেব না।’

যশের সঙ্গে পালিয়েছিলেন নুসরাত। যা স্বীকার করেন তিনি। নুসরাত বলেন, ‘আমি তোমার সঙ্গে পালিয়ে গিয়েছিলাম। আর সেটা তুমি বলেছিলে।’ আলাপচারিতার এক ফাঁকে নুসরাত বলেন, ‘আমাদের সম্পর্কের ব্যাপারে ভালো ভালো কিছু বলো।’ এ কথা শুনে যশ দাশগুপ্ত বলেন, ‘আমাদের ব্যাপারে মানুষ ভালো বলে না, সুতরাং আমি কীভাবে বলব।’ভালোবাসার এই আড্ডায় উঠে আসে নুসরাত-যশের সংসার জীবনও। যশ নাকি নুসরাতকে বাড়ির ঝি বানিয়ে ফেলেছেন। নুসরাতকে উদ্দেশ্য করে যশ বলেন, ‘তুমি

তো সবসময়ই আমাকে বলো, আমি তোমাকে ঝি বানিয়ে ফেলেছি।’ যশের এ কথা শুনে নুসরাত বলেন, ‘আমি কি করব। আমার মা বলেন, তোমার বাবা আমাকে ঝি বানিয়ে ফেলেছে। ছোটবেলা থেকে শুনে আসছি এ কথা। সেখান থেকেই শব্দটি শিখেছি।’

Related Articles

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!