খেলাধুলা

অধিনায়কত্ব হারানো নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য কোহলির

ওয়ানডে অধিনায়কত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়ার ঘন্টাখানেক আগেও জানতেন না বিরাট কোহলি। কেন তাকে সরিয়ে দেওয়া হচ্ছে সে ব্যাপারেও তেমন কিছু জানানো হয়নি। এমনটা জানিয়েছেন খোদ কোহলি নিজেই।

বর্তমান অধিনায়ক রোহিত শর্মার সঙ্গে কোনো বিরোধ নেই বলেও জানান তিনি। এমতাবস্থায় প্রশ্ন উঠেছে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে খেলবেন কি না ড্যাশিং এই ব্যাটসম্যান। যদিও এমন শঙ্কা উড়িয়ে দিয়েছেন তিনি।

দ্বন্দ্ব আর অস্বস্তির সুর ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডে। মুখোমুখি অবস্থানে বিরাট কোহলি আর বোর্ড কর্তারা। টি-টোয়েন্টি অধিনায়কত্ব ছেড়েছেন আগেই। ওয়ানডে অধিনায়কত্বও কেড়ে নেওয়া হলো। ভারতের অন্যতম সেরা এই ব্যাটসম্যানকে অনেকটা অসম্মানই করা হলো।

শুরুটা টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগেই। হঠাৎ কোহলি ঘোষণা দেন টি-টোয়েন্টি অধিনায়কত্ব ছেড়ে দেওয়ার। যদিও নির্বাচকরা বলেছিলেন, অধিনায়কত্ব না ছাড়তে। টি-টোয়েন্টি অধিনায়কত্ব ছাড়ার আগে অবশ্য ওয়ানডে এবং টেস্টে অধিনায়কত্ব চালিয়ে যাওয়ার কথা বলেছিলেন।দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজের জন্য দল ঘোষণা করার আগ মুহূর্তে কোহলিকে সরিয়ে দেওয়া হয় ওয়ানডে অধিনায়কত্ব থেকে। বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলি জানিয়েছে ছিলেন, কোহলির সঙ্গে কথা বলেই নেওয়া হয়েছে সিদ্ধান্ত। কিন্তু ভিন্ন কথা বললেন সফল এই ব্যাটসম্যান।

সাবেক অধিনায়ক বিরাট কোহলি বলেন, ‘নির্বাচকরা মিটিং করার এক দেড় ঘণ্টা আগে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষের টেস্ট সিরিজ নিয়ে আমার সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। নির্বাচকরা টেস্ট দল নিয়ে আমার সঙ্গে আলোচনা করেছে। এরপর আমাকে বলা হয় ৫ নির্বাচক সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে, আমি যেন ওয়ানডে অধিনায়ক না থাকি। তখন আমি বললাম ঠিক আছে। এই বিষয়গুলো দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টেস্ট দল ঘোষণার পর আমাকে বলা হয়েছে। আমি আবারও বলছি অধিনায়কত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়ার ব্যাপারে আমার সঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা করা হয়নি।

এমন ঘটনার পর প্রশ্ন উঠেছে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে কি যাচ্ছেন কোহলি? গুঞ্জন উঠেছে বিসিসিআইয়ের কাছে বিশ্রাম চেয়েছেন তিনি। সবকিছু খোলাসা করলেন এই ডানহাতি ব্যাটার।

তিনি বলেন, ‘দেখুন আমি দক্ষিণ আফ্রিকায় ওয়ানডে খেলার জন্য প্রস্তুত রয়েছি। আমি খেলাটা উপভোগ করি। আর এই প্রশ্নটা তাদের করুন যারা বলছে আমি বিশ্রাম চেয়েছি। তারা না জেনে মিথ্যা বলে যাচ্ছে। বিশ্রামের ব্যাপারে বিসিসিআইয়ের সঙ্গে আমার কোনো কথা হয়নি। আর আমার বিশ্রাম নেওয়ার প্রশ্নই আসে না।’ভারতীয় ক্রিকেটে দীর্ঘদিনের গুঞ্জন দ্বন্দ্ব রয়েছে কোহলি আর রোহিতের মাঝে। বর্তমান সময়ে নানা কারণে আবারও সেই প্রশ্ন উঠছে। তবে তা উড়িয়ে দিলেন কোহলি।

সাবেক এই অধিনায়ক বলেন, ‘আমি এর আগে বহুবার বলেছি রোহিতের সঙ্গে আমার কোনো দ্বন্দ্ব নেই। সত্যি কথা বলতে আমি গত দুই আড়াই বছর এটা বারবার বলেছি। কিন্তু তারপরও আমাকে এই প্রশ্নের সম্মুখীন হতে হয়েছে। আমি আপনাকে নিশ্চিত করে বলতে পারি আমার কোনো কথা ভারতীয় ক্রিকেটকে ক্ষতি করবে এমন কিছু করিনি।’দুই পক্ষের দুই রকম মন্তব্যে সম্পর্কটা যে আগের মতো নেই তা বলাই যায়। তবে অস্বস্তিকর সময়ের জবাব তিনি মাঠেই দেবেন এমনটাই প্রত্যাশা সবার।

Related Articles

Back to top button
error: Alert: Content is protected !!